যেমন হতে পারে উইন্ডোজ টেন এক্স!

শেয়ার করুন

ফোল্ডেবল ও ডুয়েল স্ক্রিন ডিভাইসের জন্য আসছে মাইক্রোসফটের অপারেটিং সিস্টেম। নাম হবে উইন্ডোজ টেন এক্স।প্রথমবারের মতো তা ডেভলপারদের জন্য উন্মু্ক্ত করা হয়েছে। এটি কেমন হতে পারে তা দেখতে পারলেন ডেভেলপাররা। অপারেটিং সিস্টেমটি উইন্ডোজ টেনভিত্তিক। তবে সর্বশেষ উইন্ডোজ থেকে অনেকটা আধুনিক হবে এর লুক।

১১ ফেব্রুয়ারি একটি প্রাথমিক ভার্সন ডেভেলপারদের দেখার সুযোগ দেয় মাইক্রোসফট। এটি দেখে দ্য ভার্জের টম ওয়ারেন নিজের প্রতিক্রিয়া জানিয়েছেন।উইন্ডোজ টেন এক্সের উল্লেখযোগ্য ফিচার ও পরিবর্তন।

স্টার্ট ম্যানুকে সম্পূর্ণ রিডিজাইন করা হয়েছে। এখানে পাওয়া যাবে না লাইভ টাইলস ভিউ। সেটি বাদ দিয়ে লুককে করা হয়েছে আরও সহজ ও সরল।

উইন্ডোজের ভয়েস অ্যাসিসট্যান্ট কর্টানাকে কোথাও খুঁজে পাওয়া যায়নি। তবে কর্টানা থাকবে কী থাকবে না তা নিয়ে নিশ্চিত কিছু জানা যায়নি। থাকছে ডার্ক মোড।

ডেস্কটপ ক্লাস মাল্টিটাস্ক থাকছে। অর্থাৎ ডিভাইসের যে কোনো স্থানে অ্যাপকে রাখা যাবে। যেমন খুশি সাইজ বানানো যাবে। ঠিক ডেস্কটপের মতো। যা মোবাইল ডিভাইসে উইন্ডোজ ব্যবহারের অভিজ্ঞতাকে অনেক উন্নত করবে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

মাল্টিটাচ জেসচারের ব্যাপক প্রয়োগ করা হয়েছে। অ্যাপলের টাচ বারকে নকল করে আনা হতে পারে ওয়ান্ডার বার।সর্বপরি টম ওয়ারেনের মতে, এখন পর্যন্ত প্রকাশিত ফিচার দেখে মনে হচ্ছে, উইন্ডোজ টেন এক্স হবে মূলত উইন্ডোজ টেনের একটি আধুনিক ভার্সন। তার ধারণা, মাইক্রোসফট বড় পরিবর্তনগুলো গোপন রেখেছে, যা আগামীতে ধীরে ধীরে প্রকাশ পাবে।

ইয়ুথ ভিলেজ/নিজস্ব প্রতিবেদক/আল রুবাই বিন হাসান

আলোচনা করুন

avatar
  Subscribe  
Notify of