টানা চতুর্থবার ‘ট্রিপল এ’ রেটিং পেল ওয়ালটন হাই-টেক

শেয়ার করুন

টানা চতুর্থবার সম্মানজনক দীর্ঘমেয়াদি ‘ট্রিপল এ’ রেটিং এবং স্বল্পমেয়াদি ‘এসটি-১’ রেটিং অর্জন করেছে ওয়ালটন-হাই টেক ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেড। একমাত্র বাংলাদেশি ইলেকট্রনিক্স ও প্রযুক্তিপণ্য উৎপাদন ও বিপণনকারী প্রতিষ্ঠান হিসেবে ওয়ালটন এ কৃতিত্ব অর্জন করে আসছে। ‘ট্রিপল এ’ হল কোনো প্রতিষ্ঠানের ক্রেডিটের সর্বোচ্চ রেটিং। যা সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠানের আর্থিক অঙ্গীকার পূরণের সর্বোচ্চ সক্ষমতা নির্দেশ করে এবং ব্যবসায়িক ও আর্থিক লেনদেনে ঝুঁকি সর্বনিম্ন থাকে।

ইমার্জিং ক্রেডিট রেটিং লিমিটেডের (ইসিআরএল) প্রতিবেদন অনুযায়ী ওয়ালটন ‘ট্রিপল এ’ এবং ‘এসটি-১’ পেয়েছে। এর আগে ২০১৮-১৯, ২০১৭-১৮ এবং ২০১৬-১৭ অর্থবছরে ‘ট্রিপল এ’ রেটিং পায় দেশের ইলেকট্রনিক্স বাজারের শীর্ষ এই প্রতিষ্ঠান। ২০১৫ অর্থবছর থেকে ২০১৯ অর্থবছর পর্যন্ত ওয়ালটন হাই-টেক ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেডের আর্থিক বিবরণীসহ অন্যান্য প্রয়োজনীয় তথ্য পর্যালোচনা করে প্রতিষ্ঠানটিকে এই রেটিং দিয়েছে ইসিআরএল।

ক্রেডিটের সর্বোচ্চ এই ‘ট্রিপল এ’ রেটিং প্রতিষ্ঠানের সমৃদ্ধিকে নির্দেশ করে। যার মূলে রয়েছে অভিজ্ঞ পরিচালনা পর্ষদ, আর্থিক অঙ্গীকার পূরণের সক্ষমতা, মানসম্মত পণ্য উৎপাদন ও সেবা ব্যবস্থাপনা, সর্বোচ্চ মানের মূলধন ব্যবস্থাপনা এবং শক্তিশালী মূলধনের বিপরীতে ঝুঁকিযুক্ত সম্পদের অনুপাত, সগঠিত ব্যবস্থাপনা পর্ষদ, দক্ষতা ইত্যাদি।

এ প্রসঙ্গে ওয়ালটন হাই-টেক ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেডের নির্বাহী পরিচালক ও রেফ্রিজারেটর বিভাগের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) প্রকৌশলী গোলাম মুর্শেদ বলেন, ওয়ালটন দেশের শীর্ষ ইলেকট্রনিক্স ও প্রযুক্তিপণ্য উৎপাদন এবং বিপণনকারী প্রতিষ্ঠান। ক্রেতা-বিক্রেতা, বিনিয়োগকারী সবার কাছে ওয়ালটন বিশ্বস্ত নাম। টানা চতুর্থবার ক্রেডিটের সর্বোচ্চ রেটিং ‘ট্রিপল এ’ প্রাপ্তিই এর প্রমাণ। এর অর্থ ওয়ালটন তার অংশীদারদের দেয়া প্রতিশ্রুতি সম্পূর্ণরূপে রক্ষা করে। ওয়ালটনের প্রতি বিপুলসংখ্যক ক্রেতা-বিক্রেতা এবং বিনিয়োগকারী আস্থা রেখেছেন। যার ফলে এ অর্জন সম্ভব হয়েছে। আমাদের বিশ্বাস তাদের ভালোবাসা ও সহযোগিতায় ওয়ালটন শুধু বাংলাদেশ নয়, বরং খুব শিগগিরই বিশ্বের অন্যতম শীর্ষ প্রতিষ্ঠানের মর্যাদায় আসীন হতে পারবে।

ইয়ুথ ভিলেজ/নিজস্ব প্রতিবেদক/আল রুবাই বিন হাসান

আলোচনা করুন

avatar
  Subscribe  
Notify of